1. kumarshuvoroy.bd@gmail.com : Shuvo Roy : Shuvo Roy
  2. eshuvo1@gmail.com : newsdesk :
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন

স্বরূকাঠীতে বীর নিবাসে গণধর্ষনের ঘটনায় থানায় অভিযোগ : আসামী গ্রেফতার

  • প্রকাশের সময়ঃ শনিবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৮৭ জন দেখেছেন

পিরোজপুর বার্তা ডেষ্ক : পিরোজপুরের নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠী) উপজেলার কামারকাঠিতে মুক্তিযোদ্ধা পিতার বীর নিবাসে এক বাকপ্রতিবন্ধির স্ত্রীকে গণধর্ষনের অভিযোগে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামী তিনজনকে গ্রেফতার করে শনিবার সকালে পিরোজপুর আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো –  উপজেলার জলাবাড়ী ইউনিয়নের কামারকাঠি গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সত্তারের ছেলে মো. আনোয়ার হোসেন, প্রতিবেশি মো. রাকিব হোসেন (২৩), মো. ইউনুস মিয়া (৩৫) ।

শুক্রবার রাতে ধর্ষনের শিকার ঐ নারী বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ ডিসেম্বর সন্ধ্যার পরে ওই ধর্ষনের ঘটনা ঘটে ।গৃহবধূ’র স্বামী বাকপ্রতিবন্ধি। তার স্বামী আসামী রাকিবের ট্রলারে থেকে নদীতে মাছ ধরতো। এ কারণে রাকিবের সাথে তাদের পারিবারিক সম্পর্ক ছিল। আসামী আনোয়ার হোসেন বিভিন্ন সমরয় রাস্তা-ঘাটে কুপ্রস্তাব দিত। ঘটনার দিন সন্ধ্যার পরে রাকিব ঐ গৃহবধুকে ফোন করে তাদের বাড়ীর জনৈক ইব্রাহিমের বসতঘরের পিছনে আসতে বলে। রাকিবের কথায় গৃহবধু সেখানে গেলে আনোয়ার, ইউনুছ এসে রাকিবের পাশ থেকে আনোয়ার তার মুখ চেপে মুক্তিযোদ্ধা পিতার নির্মানাধীন বীর নিবাসে ধরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। এভাবে আনোয়ারের পর রাকিব পালাক্রমে ধর্ষন করে। এসময় বাহির থেকে ইউনুস ঘরের দরজা বন্ধ করে পাহারা দেয়। ধর্ষন শেষে কাউকে এ ঘটনা না বলার জন্য হুমকি দিয়ে যায়। ভুক্তভোগী গৃহবধুর অভিযোগ ঘটনার পর তিনি বিষয়টি তার ননদ জামাইকে জানিয়ে ছিলেন। ননদের জামাই বিষয়টি সমাধানের কথা বলে কালক্ষেপন করেন। পরে বিষয়টি তিনি গ্রামের ইউপি সদস্য মো. নুরুল আমীনকে জানান। একপর্যায়ে কোন বিচার না পেয়ে থানায় মামলাটি করেছেন।

এলাকার ইউপি সদস্য নুরুল আমীন জানান, ওই ভুক্তভোগী নারী আমার কাছে এসেছিল। আমি তাকে থানায় যাওয়ার জন্য পরামর্শ দিয়েছিলাম। তখন থানায় নাকি অভিযোগ দিয়েছিল। এমনকি অভিযুক্তরা একটা মিমাংসার জন্য আমার কাছে এসেছিল। ধর্ষনের বিষয় বলে আমি একা একা কোন সমাধানে সাহস পাইনি।

ঘটনার একমাস পরে থানায় মামলার বিষয়ে পুলিশ বলেছে, তখন কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেয়ে তদন্ত সাপেক্ষে মামলা নেয়া হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নেছারাবাদ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এইচ এম শাহিন জানান,অভিযোগ পেয়ে শুক্রবার রাতে মামলা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতার করে শনিবার সকালে পিরোজপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

একই ধরনের আরও খবর
© পিরোজপুর বার্তা সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২৩
Developed By Pirojpur Barta